বোলিং অ্যাকশান টেস্ট কি খুবই কঠিন ?

জয় হোক, আরাফাত-সানি ও তাসকিন ।।

বোলিং অ্যাকশান টেস্ট খুবই কঠিন:  সোহাগ গাজী’র মুখেই শুনুন বিস্তারিত

২০১৪ সালের আগস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছিল সোহাগ গাজীর বোলিং অ্যাকশন। দুই মাস পর এই অফ স্পিনারের পরীক্ষা হয়েছিল কার্ডিফ মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি ল্যাবে। কিন্তু পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে পারেননি সোহাগ। পরে আরও কিছু কাজ করে পরীক্ষা দেন চেন্নাইয়ের স্যার রামাচন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষাগারে। ওই পরীক্ষার পরই গত বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি পরিশুদ্ধ ঘোষিত হয় তাঁর বোলিং অ্যাকশন।
চেন্নাইয়ের এই পরীক্ষাগারেই কাল পরীক্ষা হয়েছে আরাফাত সানির, আগামী পরশু পরীক্ষা হবে তাসকিন আহমেদের। পরীক্ষাগারে আসলে কী হয়, নিজের অভিজ্ঞতা থেকে সেটিরই কিছুটা শোনালেন সোহাগ। প্রথমেই দেখা হবে বোলারের জন্মগত সমস্যা আছে কিনা। এর পর চলবে হাতের পরীক্ষা-নিরীক্ষা। হাত ওপর-নিচ করে বেশ কবার ওঠা-নামা করতে বলা হবে। কখনো বা ঘোরাতে বলা হবে। অনেকটা ওয়ার্মআপের মতো। প্রক্রিয়াটা কত জটিল, ভালোই জানেন সোহাগ, ‘পরীক্ষা শুরুর আগে ১০-১৫ মিনিট হাত নিয়ে ওরা যে কাজ করে, সত্যি যন্ত্রণাদায়ক! না দেখলে বোঝা যাবে না। এর পর জানতে চাইবে, শারীরিকভাবে ক্লান্ত কি না। ‘‘প্রস্তুত’’ বললে শুরু হবে পরীক্ষা।’
এরপর শুরু শরীরে ক্যামেরা বসানোর কাজ। ক্যামেরা বসানোর আগে খানিকক্ষণ বোলিং অনুশীলনের সুযোগ দেওয়া হবে। যাচাই করে দেখা হবে, বোলিং করতে সমস্যা হচ্ছে কিনা। যদি সমস্যা থাকে, সেটি ঠিক করে দেওয়া হবে। বোলার যদি ডানহাতি হন, তবে শরীরের ডান পাশেই থাকবে বেশির ভাগ ক্যামেরা। আর বাঁহাতি হলে ক্যামেরার আধিক্য থাকবে বাঁ দিকে। সোহাগের ক্ষেত্রে ক্যামেরা ছিল ১৬-১৭টি।
ল্যাব সাধারণত ইনডোরের মতোই। পিচ-স্টাম্প থাকে। ক্যামেরা বসানো আদুল গায়ে সেখানে বোলিং করবেন বোলাররা। সোহাগের সামনে যেন ভেসে উঠল বোলিং করার সেই ছবি, ‘সর্বোচ্চ তিন-চার ওভার বোলিং করতে বলা হয়েছিল আমাকে। কত ওভার বোলিং করতে হবে, সেটি নির্দিষ্ট নয়। ম্যাচে যে বলের অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন ওঠে, সেটির ভিডিও ও ছবি দেখানো হয়। নির্দিষ্ট করে বললে, যে বলগুলোয় সমস্যা দেখা দিয়েছিল, সেগুলোই করতে বলে।’
একটা সমস্যা অবশ্য হয়েছিল সোহাগের, ‘কার্ডিফে পরীক্ষা দেওয়ার সময় আমার বোলিং অ্যাকশনের ভিডিও দেখানো হয়নি। ওখানে রিয়াদ ভাইয়ের (মাহমুদউল্লাহ) ভিডিও দেখানো হয়েছিল। এর পর পাঁচটা ছবি দেখানো হলো। সেগুলো রিয়াদ (মাহমুদউল্লাহ) ও সাকিব ভাইয়ের বোলিংয়ের। দেখে বেশ অবাকই হলাম! আমি আরেক বোলারের অ্যাকশনে বোলিং করব কীভাবে? তখন ওরা আমার অ্যাকশনেই বোলিং করতে বলল।’
যে অ্যাকশন সেখানে দেখানো হবে, সেই অনুযায়ী বোলিং করতে হবে। একটু এদিক-ওদিক হলে ফের করতে হবে। পরীক্ষার শেষে জানিয়ে দেওয়া হবে ফল প্রকাশের তারিখ। নির্ধারিত তারিখে সাধারণত আইসিসি ক্রিকেট বোর্ডকে জানিয়ে দেয় ফল। সেটি ইতিবাচক হলে বোলার যেন প্রাণ ফিরে পান শরীরে।
এখন সেই সুখবরের অপেক্ষায় তাসকিন-সানি।

গোলাম রাব্বি’র ফেসবুক  পোস্ট থেকে নেয়া

10 comments

  1. Thanks , I have just been searching for information about this subject for a long time and yours is
    the greatest I have found out till now. But, what about the bottom line?
    Are you sure in regards to the source?

  2. Hey I know this is off topic but I was wondering if you knew of any
    widgets I could add to my blog that automatically tweet my newest twitter updates.
    I’ve been looking for a plug-in like this for quite some time and was hoping maybe you would have some
    experience with something like this. Please let me know if you run into
    anything. I truly enjoy reading your blog and I look forward to your new updates.

  3. Hi, I think your site might be having browser compatibility issues.
    When I look at your blog in Ie, it looks fine but when opening in Internet Explorer,
    it has some overlapping. I just wanted to give you a quick heads up!
    Other then that, fantastic blog!

  4. Which is a good tip especially to individuals unfamiliar with
    the blogosphere. Simple but very precise information Thank you for sharing this one.
    Essential read article!

  5. Hi there great blog! Does running a blog similar to this require a lot of work?

    I’ve very little knowledge of programming however I was hoping to start my own blog in the near future.
    Anyhow, if you have any suggestions or tips for new blog owners please share.

    I know this is off topic nevertheless I simply needed to ask.
    Thanks!

  6. That is very interesting, You’re an excessively skilled blogger.
    I have joined your feed and sit up for in quest of extra of your wonderful post.
    Also, I’ve shared your web site in my social
    networks

  7. great publish, very informative. I wonder why the contrary experts of the sector do not notice this.
    You should proceed your writing. I am just confident, you have a massive readers’
    base already!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *